শনিবার, ২০ Jul ২০১৯, ০৫:৪৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ-
শরীয়তপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর মাছ শিকারীর গলিত লাশ উদ্ধার শরীয়তপুরে ৮দিন জেলখেটে ধর্ষক জামিনে মুক্ত, আতঙ্কে ভিকটিমের পরিবার, সুশীল সমাজে ক্ষোভ শরীয়তপুরে কলেজছাত্রী গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা, আটক-১ কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা, জাজিরা পৌর মেয়রপুত্র জেলহাজতে পাটুনীগাঁওয়ে কাঠমিস্ত্রীকে হাতুড়িপেটা শরীয়তপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা কালকিনিতে মাদক মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক শরীয়তপুরের কোয়ারপুরে দু’গ্রুপে সংঘর্ষে আহত ৮ ডামুড্যায় অগ্নিকান্ডে মুদি দোকানীর মৃত্যু শরীয়তপুরে পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্স
শরীয়তপুরে কলেজছাত্রী গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা, আটক-১

শরীয়তপুরে কলেজছাত্রী গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা, আটক-১

টাইমস রিপোর্ট ॥ শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলা সদরে অবস্থিত জাজিরা স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী(১৬) শরীয়তপুর আন্তঃজেলা পরিবহন শ্রমিকদের দ্বারা গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শরীয়তপুর সদর উপজেলার উত্তর মধ্যপাড়া গ্রামের একটি বাড়িতে রবিবার রাতে ওই ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়। মঙ্গলবার রাতে এ অভিযোগে ভিকটিমের পিতা সোনা মিয়া বেপারী বাদী হয়ে শরীয়তপুরের আন্ত:জেলা পরিবহনের ৪ শ্রমিককে আসামী করে পালং মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পালং মডেল থানা পুলিশ গণধর্ষণের অভিযোগে রাকিব মন্ডল(২২) নামে এক বাস চালককে আটক করেছে।
পালং মডেল থানা ও স্থানীয় সূত্র জানায়, জাজিরা উপজেলা সদরের জাজিরা স্কুল এন্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীর বাড়ি ছিল নড়িয়া উপজেলায়। গতবছর নদী ভাঙনে গৃহহীন হয়ে জাজিরার একটি গ্রামে আশ্রয় নেয় তার পরিবার। ওই ছাত্রী রবিবার বিকেলে মাদারীপুরে তার এক আত্মীয়ের বাড়ি যাওয়ার জন্য নিজ বাড়ি থেকে শরীয়তপুর জেলা শহরের বাস টার্মিনালে আসেন। তখন সেখানে দেখা হয় পূর্ব পরিচিত পরিবহন শ্রমিক ইসলাম ফকির নামে এক যুবকের সাথে। ইসলাম ফকির ওই ছাত্রীকে তার আত্মীয়ের বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে তার বন্ধু রাকিব মন্ডল (২২), সবুজ রাড়ী (২৩) ও ইকবালের সাথে অটোরিকসায় তুলে দেয়। রাকিব মন্ডল, সবুজ রাড়ী ও ইকবাল মেয়েটিকে নিয়ে শরীয়তপুর সদর উপজেলার মনোহর বাজারে যায়। সেখানে কিছু খাওয়া দাওয়ার পর একই এলাকায় মেয়েটিকে রাকিব মন্ডলের নির্জন বাড়িতে নেয়া হয়। সেখানে মেয়েটির মুখ বেঁধে রাকিব মন্ডল, সবুজ রাড়ী ও ইকবাল প্রথম দফায় মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর সন্ধ্যায় ওই বাড়িতে যায় ইসলাম ফকির। রাতে ইসলাম ফকিরও ওই মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পুণরায় ধর্ষণ করা নিয়ে ইসলাম ফকিরের সাথে রাকিব মন্ডল, সবুজ রাড়ী ও ইকবালের কথা কাটাকাটি হয়। তখন ইসলাম ফকির পুনরায় ধর্ষণ করার জন্য মেয়েটিকে তাদের বাড়ির পাশে শরীয়তপুর বনবিভাগের পুকুর ঘাটে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়েও মেয়েটিকে পুনরায় ধর্ষণ করা হয়। সকল ধর্ষকের বাড়ি শরীয়তপুর সদর উপজেলার উত্তর মধ্যপাড়া গ্রামে বলে জানা গেছে।
এদিকে স্থানীয় এক অটোরিকসা চালক এ ঘটনা দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে ইসলাম ফকির মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে ওই অটোরিকসা চালক বিষয়টি পরিবহন শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের জানান এবং মেয়েটিকে তার পরিবারের সদস্যদের কাছে পৌঁছে দেন। পরিবহন শ্রমিকরা অপরাধীদের বিচার করবেন এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে মেয়েটির পরিবারকে থানায় যেতে বাধা প্রদান করেন। মঙ্গলবার শরীয়তপুর আন্ত:জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক চৌকিদার অভিযুক্ত রাকিব মন্ডলকে বাস টার্মিনালে দেখতে পেয়ে আটক করে পুলিশে তুলে দেয়।
ধর্ষণের শিকার ঐ ছাত্রী বলেন, মাদারীপুরে এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার জন্য শরীয়তপুর বাস টার্মিনালে আসি। সেখানে দেখা হয় ইসলাম ফকিরের সাথে। সে আমার পূর্ব পরিচিত ছিল। আত্মীয়ের বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে সে তার বন্ধুদের সাথে অটোরিকসায় তুলে দেয় আমাকে। কিন্তু তারা কৌশল করে আমাকে নির্জন স্থানে একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে একটি ঘরে আটকে রেখে আমাকে পালক্রমে ধর্ষণ করেছে। ইসলাম ফকির, রাকিব মন্ডল, সবুজ রাড়ী ও ইকবাল কয়েক দফায় আমাকে ধর্ষণ করেছে। আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
ছাত্রীর বাবা সোনা মিয়া বেপারী বলেন, যারা আমার মেয়েকে মুখ বেঁধে নির্যাতন করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। আমি ওদের বিরুদ্ধে মামলা করেছি।
শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, চারজন মিলে একটি মেয়েকে ধর্ষণ করেছে এমন অভিযোগে এক শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। ভিকটিম মেয়েটির বাবা চারজনকে আসামী করে মামলা করেছে । মামলার বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক
error: কপি করা দন্ডনীয় অপরাধ,যে কোনো প্রয়োজনে কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।