মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ-
সংবাদদাতা/সাংবাদিক নিয়োগ শরীয়তপুরে বিএনপি’র ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত শরীয়তপুর পলিটেকনিকের ছাত্রীদেরকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়ায় শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ শরীয়তপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর মাছ শিকারীর গলিত লাশ উদ্ধার শরীয়তপুরে ৮দিন জেলখেটে ধর্ষক জামিনে মুক্ত, আতঙ্কে ভিকটিমের পরিবার, সুশীল সমাজে ক্ষোভ শরীয়তপুরে কলেজছাত্রী গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা, আটক-১ কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা, জাজিরা পৌর মেয়রপুত্র জেলহাজতে পাটুনীগাঁওয়ে কাঠমিস্ত্রীকে হাতুড়িপেটা শরীয়তপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা কালকিনিতে মাদক মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক
কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা, জাজিরা পৌর মেয়রপুত্র জেলহাজতে

কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা, জাজিরা পৌর মেয়রপুত্র জেলহাজতে


টাইমস রিপোর্ট ॥ শরীয়তপুরের জাজিরা পৌরসভার মেয়র মোঃ ইউনুস আলী বেপারীর ছেলে মাসুদ বেপারীকে এক কলেজছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের দায়ে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত। ধর্ষণের শিকার ওই কলেজছাত্রীর মামলার প্রেক্ষিতে সোমবার সকালে জাজিরা থানা পুলিশ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পৌর মেয়রপুত্র মাসুদ বেপারীকে হাজির করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। এর আগে শনিবার রাতে জাজিরা পৌরসভার নিজ বাড়ির একটি কক্ষে আটকে রেখে ওই কলেজছাত্রীকে (১৮) ধর্ষণ করে জাজিরা পৌরসভার মেয়র ইউনুস আলী বেপারীর ছেলে মাসুদ বেপারী (৩১)। ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা করা হয় ওই কলেজছাত্রীকে। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী বাদী হয়ে জাজিরা থানায় মাসুদ বেপারীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা করলে মাসুদ বেপারীকে রবিবার ভোরে জাজিরা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। ধর্ষণের শিকার তরুণী জাজিরা স্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি স্থানীয় একটি ক্লিনিকে চাকরি করেন। তার বাড়ি জাজিরা পৌরসভার আড়াচন্ডি এলাকায়।
পুলিশ ও ভুক্তভোগি জানায়, কয়েকদিন আগে মোবাইল ফোনে মেয়রের ছেলে মাসুদের সঙ্গে কলেজছাত্রীর পরিচয় হয়। শনিবার সন্ধ্যায় কলেজছাত্রীকে বাসায় এসে দেখা করতে বলে মাসুদ। বাসায় গেলে একটি কক্ষে কলেজছাত্রীকে আটকে রাখা হয়। পরে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ করে মেয়রের ছেলে মাসুদ। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত কলেজছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা করা হয়। একপর্যায়ে কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন কলেজছাত্রী। মেয়রের বাড়ির বাইরে এলে স্থানীয় নারীরা কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে মুঠোফোনে জানতে চাইলে জাজিরা পৌরসভার মেয়র ইউনুস আলী বেপারী বলেন, আমি জাজিরা উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন সদস্য। আমার ছেলে যদি সত্যি অপরাধ করে থাকে তাহলে আমার কোন কথা নেই। কিন্তু নির্দোষ হলে আমার যেন মান সম্মান ক্ষুন্ন না হয় সেদিকে সবার প্রতি অনুরোধ করছি। জাজিরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. বেলায়েত হোসেন স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের খবর শুনে জাজিরা পৌরসভার মেয়র ইউনুস বেপারীর ছেলে মাসুদ বেপারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ তাকে ভিকটিমের মামলার প্রেক্ষিতে আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কলেজছাত্রীকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক
error: কপি করা দন্ডনীয় অপরাধ,যে কোনো প্রয়োজনে কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।