বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০১৯, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন

সন্তানদের সামনে হাত-পা বেঁধে স্ত্রীকে হত্যা

সন্তানদের সামনে হাত-পা বেঁধে স্ত্রীকে হত্যা

34274528_1452099731562494_8989454378314235904_nনড়িয়া প্রতিনিধি ॥ শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার চরনড়িয়া গ্রামে মনি মালা (২৭) নামে এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে। তার স্বামী জসিম বেপারী সন্তানদের সামনে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। শুক্রবার ভোরে হত্যা করে বসতঘরে ওই গৃহবধূর লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায় পাষন্ড স্বমী জসিম বেপারী।
নড়িয়া থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নড়িয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের খলিফাপাড়া এলাকার ইয়ার বকস সরদারের মেয়ে মনি মালা। প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে ১০ বছর আগে চরনড়িয়া গ্রামের জসিম বেপারীকে বিয়ে করেন। বিয়ের চার বছরের মধ্যে তাদের দু’জন পুত্র সন্তান জন্ম হয়। জসিম নরসিংদিতে কাঠ মিস্ত্রীর কাজ করে। আর মনি মালা সন্তানদের নিয়ে নড়িয়ায় থাকতেন। জসিম নরসিংদিতে একটি বিয়ে করেছে এমন একটি খবর জানতে পারে মনি মালা। এ নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। তাদের মাঝে অনেকবার ঝগড়াও হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপে প্রতিবারই সমঝোতা হয়েছে। গত পাঁচ দিন আগে জসিম নরসিংদি থেকে চরনড়িয়ায় আসে। এ পাঁচ দিন মনি মালাকে ঘরে আটকে রেখে মারধর করে। বৃহস্পতিবার রাতে বসতঘরের একটি কক্ষে দুই ছেলেকে বেঁধে আটকে রাখা হয়। তারপর মনি মালার হাত-পা বেঁধে শুক্রবার ভোরে শ্বসরোধ করে হত্যা করা হয়। খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা চরনড়িয়া গ্রামে ছুটে যায় এবং পুলিশকে খবর দেয়। শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) আব্দুল হান্নান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মনি মালার ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, পারিবারিক কলহ ছিল, প্রায়ই মারধর করত। আমরা অনেকবার বোনকে আমাদের কাছে নিয়ে আসতে চেয়েছিলাম, কিন্তু সে সন্তানদের কথা ভেবে স্বামীর সংসার ছাড়তে চায়নি। শত নির্যাতন সহ্য করেও টিকে থাকতে চেয়েছে। এখন তাকে পৃথিবী ছাড়তে হলো। জসিম এভাবে আমার বোনকে হত্যা করবে তা ভাবতেও পারিনি। আমরা হত্যাকারীর ফাঁসি চাই। নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আসলাম উদ্দিন বলেন, স্ত্রীকে হত্যা করে জসিম নামে এক যুবক পালিয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ওই গৃহবধূর পরিবারের সদস্যরা মামলা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক
error: কপি করা দন্ডনীয় অপরাধ,যে কোনো প্রয়োজনে কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।