বুধবার, ২১ অগাস্ট ২০১৯, ১২:২২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ-
শরীয়তপুর পলিটেকনিকের ছাত্রীদেরকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়ায় শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ শরীয়তপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর মাছ শিকারীর গলিত লাশ উদ্ধার শরীয়তপুরে ৮দিন জেলখেটে ধর্ষক জামিনে মুক্ত, আতঙ্কে ভিকটিমের পরিবার, সুশীল সমাজে ক্ষোভ শরীয়তপুরে কলেজছাত্রী গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে মামলা, আটক-১ কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার চেষ্টা, জাজিরা পৌর মেয়রপুত্র জেলহাজতে পাটুনীগাঁওয়ে কাঠমিস্ত্রীকে হাতুড়িপেটা শরীয়তপুরে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা কালকিনিতে মাদক মামলার পলাতক আসামী র‌্যাবের হাতে আটক শরীয়তপুরের কোয়ারপুরে দু’গ্রুপে সংঘর্ষে আহত ৮ ডামুড্যায় অগ্নিকান্ডে মুদি দোকানীর মৃত্যু
সখিপুরে শহীদদের নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ে নেই শহীদ মিনার

সখিপুরে শহীদদের নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ে নেই শহীদ মিনার

IMG_20170220_133253শাকিল আহম্মেদ, সখিপুর || শরীয়তপুর জেলার সখিপুরের চরভাগা ইউনিয়নে অবস্থিত শহীদ বুদ্ধিজীবী ডাঃ হুমায়ূন কবির উচ্চ বিদ্যালয়ে নেই কোন শহীদ মিনার। জেলার একমাত্র শহীদ বুদ্ধিজীবী ডাঃ হুমায়ূন কবিরের নামে প্রতিষ্ঠিত এই বিদ্যালয়টি। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে অসামান্য অবদানের জন্য যিনি পেয়েছেন বুদ্ধিজীবীর সম্মাননা। সেই শহীদ বুদ্ধিজীবীর নামে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টিতে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর জন্য আজও পর্যন্ত নির্মিত হয়নি  শহীদ মিনার। ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টি দীর্ঘ ২৩ বছর অতিক্রম করলেও শহীদ মিনার স্থাপনের কোন উদ্যোগ নেয়নি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ফলে প্রতি বছর কলাগাছ দিয়ে তৈরী শহীদ মিনারেই  পুস্প অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। সোমবার সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, স্কুলের স্কাউট দলের ছাত্ররা এলাকার বিভিন্ন জায়গা থেকে কলাগাছ সংগ্রহ করে তৈরী করছে কলাগাছের শহীদ মিনার। একুশে ফেব্রুয়ারির আগের দিন স্কুলটির ছাত্ররা সকাল থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত সময় ব্যয় করে এ শহীদ মিনার নির্মাণ কাজে। ফলে ২১ শে ফেব্রুয়ারির আগের দিন ক্লাস করা হয়না তাদের। স্কুলটির বিভিন্ন শ্রেণির ছাত্ররা জানায়, আমরা সকাল থেকে শুরু করে শহীদ মিনার নির্মাণ কাজে সময় পার করছি শেষ করতে প্রায় রাত ৮টা বাজবে। তারা আরো জানায়, প্রতিবছরই এভাবে কষ্টকরে শহীদ মিনার নির্মাণ করে তারা। স্কুলের সাবেক এক ছাত্র জানায়, স্কুলের পাশে অবস্থিত বাংলালিংক টাওয়ার নির্মাণের অবশিষ্ট অংশ দিয়ে আমরা শহীদ মিনার নির্মাণ করতে চেয়েছিলাম। কিন্তুু প্রধান শিক্ষকের আগ্রহ না থাকায় তা আর সম্ভব হয়নি। আর সেই অবশিষ্ট মালামালের খবর প্রধান শিক্ষকই ভালো জানেন। এ ব্যাপারে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক দাদন মিয়া বলেন, মূল্যত আমাদের কারণেই বিদ্যালয়টিতে শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়নি। তবে অতি শিঘ্রই শহীদ মিনার নির্মাণে উদ্যোগ নেয়া হবে।  এছাড়া সখিপুরের আবদুল গনি উচ্চ বিদ্যালয়, কাঁচিকাটার দুলারচর উচ্চ বিদ্যালয়, কাঁচিকাটার জোহরা কাদির উচ্চ বিদ্যালয়, দক্ষিণ তারাবুনিয়ার এস ই এস ডিপি মডেল স্কুলে শহীদ মিনার নেই। তারাও কলাগাছ অথবা কাঠের তৈরী শহীদ মিনারে পালন করে ২১শে ফেব্রুয়ারি। এ ব্যাপারে ভেদরগন্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহেল আহম্মেদ জানান, আমাদের উপজেলার পক্ষ থেকে এক সাথে সকল বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ করা সম্ভব না। কিন্তু বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ উদ্যোগ নিলেই সকল বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ সম্ভব।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




উন্নয়ন সহযোগীতায়ঃ- সেভেন ইনফো টেক
error: কপি করা দন্ডনীয় অপরাধ,যে কোনো প্রয়োজনে কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করুন।